মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে

চন্দন দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়প্রিয় পাঠক, আপনি কি মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে সেই সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? তাহলে আপনি এখন সঠিক জায়গাতেই রয়েছেন। কেননা আজকের এই সম্পূর্ণ আর্টিকেলজুড়ে আমরা মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো। তাই এই সম্পর্কে যদি আপনি জানতে চান তাহলে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন।
মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো
আপনি যদি আজকের সম্পূর্ণ আর্টিকেল শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে মেয়েদের তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াশ ভালো, মেয়েদের ব্রণের জন্য কোন ফেসওয়াস ভালো হবে এবং মেয়েদের শুষ্ক ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াস ভালো হবে সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

পেজ সূচিপত্রঃ

মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে আপনি যদি এই সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আপনাকে আগে ফেসওয়াশগুলো সম্পর্কে ধারণা নিতে হবে। কেননা আপনি যদি সকল ফেশওয়াশ সম্পর্কে ধারণা না নেন তাহলে বুঝতে পারবেন না আপনার জন্য কোন ফেশওয়াশ সবথেকে বেশি ভালো হবে। তাই চলুন আমরা আর বেশি দেরি না করে মূল আলোচনার প্রবেশ করি।

মেয়েরা যারা ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে চান তাদের জন্য ভালো কিছু ফেসওয়াশ এর নাম নিম্নে উল্লেখ করা হলো।
  • হিমালয় হারবালস নিম ফেসওয়াশ
  • ল্যাকমে ব্লাশ অ্যান্ড গ্লো কিউয়ি ক্রাশ জেল ফেসওয়াশ
  • সিম্পল ডেইলি স্কিন ডিটক্স পিউরিফায়িং ফেসিয়াল ওয়াশ
  • ক্লিন অ্যান্ড ক্লিয়ার ফোমিং ফেসওয়াশ
  • YC মিল্ক এক্সট্র্যাক্ট ফেস ওয়াশ (100 মি.লি.)
  • ডার্মালজিকা ব্রেকআউট ক্লিয়ারিং ফোমিং ওয়াশ
  • Laikou Japan Sakura ক্লিনজার ফেস ওয়াশ
  • পন্ড'স পিম্পল ক্লিয়ার ফেসওয়াশ
  • পিয়ার্স আলট্রা মাইল্ড ফেসওয়াশ ইন অয়েল ক্লিয়ার গ্লো
  • Rajkonna অ্যাকনি ফাইটিং ফেসিয়াল ওয়াশ
মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

হিমালয় হারবালস নিম ফেসওয়াশ

বর্তমান সময়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে এই ফেসওয়াশটি। এর কারণ হলো এই ফেসওয়াশ সকল প্রকারের প্রাকৃতিক গুনাগুন দিয়ে তৈরি করা। একটি ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে এটি ত্বকের তেলকে নিয়ন্ত্রণ করবে। এবং এটি ত্বকের সকল প্রকারের উচ্ছিষ্ঠাংশ দাগ দূর করে ফেলবে। এছাড়াও এই ফেসওয়াশের রয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য। আর কারণে ত্বকের ব্রণের সমস্যা দূর করে এবং ত্বককে পরিষ্কার ও স্বাস্থ্যকর ভাবে গড়ে তোলে।

ল্যাকমে ব্লাশ অ্যান্ড গ্লো কিউয়ি ক্রাশ জেল ফেসওয়াশ

মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে। যদি আপনার ত্বক অনেক বেশি তেল তেলে ভাব থাকে এবং আপনি আপনার ত্বককে আরো বেশি ক্লিয়ার করতে চান তাহলে এটি আপনার জন্য সর্বোত্তম একটু ফেসওয়াশ হবে। আপনি যখন এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করবেন তখনই আপনি এর উৎকৃষ্ট প্রমাণ পাবেন। এর প্রধান কারণ হলো এ ফেসওয়াশ তৈরি করা হয়েছে কিউয়ি ফলের নির্যাস এবং কোমল স্ক্রাবিং বিডস ব্যবহার করে। যার জন্য এটি ত্বকে থাকা সকল প্রকারের তেলতেলে ভাব দূর করে দিতে সক্ষম।

সিম্পল ডেইলি স্কিন ডিটক্স পিউরিফায়িং ফেসিয়াল ওয়াশ

আপনি যদি এই ফেসওয়াস ব্যবহার করেন তাহলে এটি আপনার ত্বকের তেলতেলে ভাব দূর করবে। এছাড়াও আপনি যদি নিয়মিত মেকআপ করে থাকেন তাহলে এটি আপনার মেকাপের অবশিষ্ট অংশ খুব সহজে পরিষ্কার করে দিবে। আপনি যদি অন্য কোন প্রকারের অ্যালকোহল যুক্ত ফেসওয়াশ ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনি এই ফেসওয়াস নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারেন।
কারণ এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করার কারণে আপনার ত্বকের উপর কোন প্রকারের সাইড ইফেক্ট ফেলবে না। এর পাশাপাশি এটি আপনার ত্বকের ব্রণের সমস্যা খুব সহজে সমাধান করে দিবে। মেয়েদের এই ফেসওয়াশে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যার জন্য ত্বক অনেক বেশি উজ্জ্বল এবং ঝকঝকে করে তোলে। যার কারণে আপনার ত্বক হবে চোখে পড়ার মতো।

ক্লিন অ্যান্ড ক্লিয়ার ফোমিং ফেসওয়াশ

মেয়েদের জন্য এই ফেসওয়াশ একটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বর্তমান সময়ে। এর কারণ হলো এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে ত্বকের তেল দূর করে এবং সাথে সাথে এটিকের সকল প্রকারের ময়লা অপসারণ করে ফেলে। এছাড়াও এই ফেসওয়াশের একটি বিশেষ উপাদানের মধ্যে রয়েছে এন্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য। যার কারণে ত্বকের উপরে ব্রণের সৃষ্টিকারী সকল প্রকার জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করে। এবং ত্বকের রুক্ষতা ধরে রাখে।

YC মিল্ক এক্সট্র্যাক্ট ফেস ওয়াশ

এই ফেসওয়াসটি ব্যবহার করলে আপনার ত্বক গভীর থেকে পরিষ্কার হতে সহায়তা করব। তাই যারা ত্বক পরিষ্কার করতে চান তাদের জন্য এই ফেসওয়াস উত্তম একটি ফেসওয়াস হতে পারে। বর্তমানে এই ফেসওয়াশ বাজারে 50 মিলিগ্রামের পাওয়া যায়।

ডার্মালজিকা ব্রেকআউট ক্লিয়ারিং ফোমিং ওয়াশ

মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে। যদি আপনার ত্বককে গভীর থেকে পরিষ্কার করতে চান তাহলে এটি হতে পারে আপনার জন্য সবথেকে উপযোগী একটি ফেসওয়াশ। এই ফেসওয়াশ অনেকটাই ফেনা যুক্ত। যার জন্য এটি আপনার ত্বকের থাকা মৃত কোষকে দূর করে দেয়। এবং আপনার ত্বককে রাখে জীবাণুমুক্ত। এই ফেসওয়াশে আপনি বাড়তি করে স্যালিসাইলিক অ্যাসিড পেয়ে যাচ্ছেন। যার কারণে এটি আপনার ত্বকের ব্রণের সমস্যা দূর করবে খুব সহজেই। এবং ত্বকের প্রদাহ কমিয়ে নিয়ে আসবে।

Laikou Japan Sakura ক্লিনজার ফেস ওয়াশ

এমন অনেকের রয়েছেন যাদের ত্বক ময়েশ্চারাইজার করতে চান। তবে আপনার জন্য এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। যদি আপনি এই ফেসওয়াশ নিয়ম মেনে প্রতিদিন ব্যবহার করেন তাহলে এটি আপনার ত্বককে গভীর থেকে ময়েশ্চারাইজ করবেন। এছাড়াও এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করার ফলে আপনার ত্বক উজ্জ্বল হতে থাকবে। তাই আপনি চাইলে এই ফেসওয়াশ টি ব্যবহার করতে পারেন।

পন্ড'স পিম্পল ক্লিয়ার ফেসওয়াশ

আপনাদের অনেকের কাছে এই ফেসওয়াশ পরিচিত হয়ে থাকতে পারে। কারণ এই ফেসওয়াশ অনেকজনই ব্যবহার করে থাকেন। যদি এই ফেসওয়াস ব্যবহার করেন তাহলে এটি আপনার ত্বকের পিম্পলের সমস্যা দূর করবে। এছাড়াও এই ফেসওয়াশের মধ্যে রয়েছে অ্যাকটিভ থাইমো-টি এসেন্স ফরমুলা। যেটি আপনার ত্বকের পরিষ্কার নিয়ে আসার সাথে সাথে ত্বক রাখবে ব্রণমুক্ত।
মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে
এমন অনেকেই রয়েছেন যাদের মুখে ব্রণের সমস্যা রয়েছে। কিন্তু হাজার হাজার অনেক ধরনের চেষ্টা করার পরে সেই সমস্যার সমাধান করতে পারছেন না। আপনি চাইলে এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। তিন দিনের ভেতরে আপনি এর উপকার বুঝতে পারবেন। তবে আপনি যদি সঠিক উপকারিতা উপভোগ করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে নিয়ম মেনে সম্পূর্ণ ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে হবে।

পিয়ার্স আলট্রা মাইল্ড ফেসওয়াশ ইন অয়েল ক্লিয়ার গ্লো

মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে সেই সকল ফেসওয়াশের মধ্যে এই ফেসওয়াশ তৈরি করা হয়েছে লেবুর ফুলের নির্যাস ব্যবহার করে। তাই আপনি যদি গরমের দিনে ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনি এই ফেসওয়াশ টি ব্যবহার করতে পারেন। কোমল এই ফেসওয়াশটি আপনার ত্বকের জন্য অ্যাস্ট্রিনজেন্ট হিসেবেও কাজ করবেন। যার জন্য এটি আপনার ত্বকের সকল প্রকারের লোমকূপ খুলে দিবে এবং আপনার ত্বকে থাকা বাড়তি তেল খুব সহজেই দূর করে দিবে।

Rajkonna অ্যাকনি ফাইটিং ফেসিয়াল ওয়াশ

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয়তার জন্য এই ফেসওয়াসকে একটি প্রিমিয়াম কোয়ালিটির ফেসওয়াস বলা হয়ে থাকে। এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে আপনার ত্বকের সকল প্রকার মৃত কোষ তো দূর করবেই এছাড়াও এটি আপনার ত্বক খুব সহজেই উজ্জ্বল করে তুলবে। যার কারণে আপনি আরো অনেক উজ্জ্বল অনুভব করবেন। এছাড়াও এই ফেসওয়াস ব্যবহার করলে আপনার ত্বকের যে তেলতেলে ভাব রয়েছে সেটিও দূর হয়ে যাবে।
বর্তমান সময়ে বাজারে এই সকল ফেসওয়াশ ছাড়াও আরো অনেক ধরনের ফেসওয়াশ পাওয়া যায়। তবে আপনি একজন মেয়ে হিসেবে আপনার ত্বকের কোন ধরনের সমস্যার সমাধান করতে চান সেটি নির্ভর করে আপনাকে ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে হবে। উপরের উল্লেখিত বেশ কিছু ফেসওয়াশ এবং কোন কোন কাজে ফেসওয়াশ ভালো পারফরম্যান্স করবে সেই সকল বিষয়গুলো উল্লেখ করা হয়েছে।

আপনি উল্লেখিত বিষয়গুলো বিবেচনায় রেখে এই সকল ফেসওয়াশ এর মধ্য থেকে আপনার জন্য নির্ধারিত ফেসওয়াশটি কিনে ব্যবহার করতে পারেন। আশা করছি আপনি সম্পূর্ণ বিষয়ে বুঝতে সক্ষম হয়েছেন। যদি এরপরও আপনার এই বিষয়ে কোন প্রকারের জানার আগ্রহ থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্ট করার মাধ্যমে জানাবেন।

মেয়েদের তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াশ ভালো

ইতিপূর্বে আমরা সকলেই মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে সেই সম্পর্কে জেনেছি। এখন এই পর্বে আমরা সকলেই জানবো মেয়েদের তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াশ ভালো হবে। তাই আপনার ত্বক যদি অনেক বেশি পরিমাণে তৈলাক্ত থেকে থাকে আর আপনি যদি সেই তৈলাক্ততা দূর করতে চান তাহলে এই পর্বটি আপনার জন্য হতে চলেছে অনেক বেশি স্পেশাল। তাই চলুন আর বেশি দেরি না করে মূল আলোচনার প্রবেশ করি।
মেয়েদের তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াশ ভালো
বর্তমান সময়ে আমরা যে ধরনের প্রশ্নগুলো পেয়ে থাকি সেই সকল প্রশ্নগুলোর মধ্যে একটি প্রশ্ন হল তৈলাক্ত ত্বক কিভাবে দূর করা যায় এবং এর জন্য কোন ফেসওয়াশ ব্যবহার করব। যেহেতু আমাদের এক একজনের ত্বক আলাদা ধরনের তাই একেক জনের ত্বকের ক্ষেত্রে একেক ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। আমাদের মধ্যে ত্বকের ভিন্নতার ভিত্তিতে ৫ ধরনের ত্বক হয়ে থাকে। সেগুলো হল
  • ড্রাই স্কিন
  • নরমাল
  • স্কিন অয়েলি
  • কম্বিনেশন এবং
  • সেনসিটিভ
সকল ত্বকের জন্য আমরা আজকের নিম্নে কিছু ফেসওয়াশের নাম উল্লেখ করব। যে সকল ফেসওয়াসগুলো ব্যবহার করলে এই সকল ত্বকের ক্ষেত্রে তৈলাক্ততা দূর করা সম্ভব হবে। সেই সকল ফেসওয়াশগুলোর নাম নিম্নে উল্লেখ করা হলো।
  • দ্য বডি শপ টি ট্রি স্কিন ক্লিয়ারিং ফেসিয়াল ওয়াশ
  • নিউট্রোজিনা অয়েল ফ্রি অ্যাকনে ওয়াশ
  • কজারেক্স স্যালিসাইলিক অ্যাসিড ডেইলি জেনট্যাল ক্লিনজার
  • নিউট্রোজিনা ক্লিয়ার এন্ড সুদ মূজ ক্লিনজার

দ্য বডি শপ টি ট্রি স্কিন ক্লিয়ারিং ফেসিয়াল ওয়াশ

বর্তমান সময়ের সব থেকে জনপ্রিয় একটি ফেসওয়াশের মধ্যে এই ফেসওয়াশ হল উল্লেখযোগ্য একটি ফেসওয়াশ। আপনি যদি এই ফেসওয়াশ একমাস ব্যবহার করেন তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন এর কতগুলো বেনিফিট আপনি পাচ্ছেন। এ ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে এটি আপনার ত্বকের ওয়াইলি কম্বিনেশন ঠিক রাখবে।
মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে এমন ফেসওয়াশ রয়েছে অনেক। এছাড়াও যাদের ত্বক অনেক বেশি সেনসিটিভ তারাও চাইলে নিশ্চিন্তে এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারবেন। যাদের ব্রণের সমস্যা রয়েছে তাদের ব্রণের সমস্যা রয়েছে তাদের ব্রণের সমস্যাও দারুণভাবে সমাধান করে দেবে এই ফেসওয়াশ। খুব বেশি পরিমাণে ব্যবহার করতে হয় না, যার কারণে এই ফেসওয়াশ অনেকদিন ধরে ব্যবহার করা যায়।

নিউট্রোজিনা অয়েল ফ্রি অ্যাকনে ওয়াশ

দ্বিতীয়তে আসি আমরা নিউট্রোজিনা অয়েল ফ্রি অ্যাকনে ওয়াশ নিয়ে। এই ফেসওয়াশ যারা নিয়মিত ব্যবহার করেছেন তারা সকলেই এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করার ফলে অনেক ভালো ফলাফল পেয়েছেন। এই ফেসওয়াশ এর কিছু উল্লেখযোগ্য এবং সবথেকে ভালো দিকগুলো হলো, আমাদের এমন অনেকের টক রয়েছে যে সকল ক্ষেত্রে অতিরিক্ত পরিমাণে সেবাম প্রোডাকশন হয়ে থাকে। আর এটি নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এই ফেসওয়াশ দারুণভাবে কার্যকরি।

এছাড়াও এই ফেসওয়াস এর মধ্যে রয়েছে স্যালিসাইলিক অ্যাসিড ০২%, সোডিয়াম সি ১৪ থেকে ১৬ ওলেফিন সালফোনেট। যে সকল উপাদানগুলো ব্রণের সকল ধরনের সমস্যার ক্ষেত্রে খুব বেশি কার্যকরী। এই ফেসওয়াস অল্প পরিমাণে ব্যবহার করার কারণেই খুব সহজে সম্পন্ন কভার হয়ে যায়। যার জন্য এটি ত্বকের গভীর থেকে ক্লিন করে। এছাড়াও এটি ত্বকের সকল প্রকারের ভাব দূর করতে সক্ষম।

কজারেক্স স্যালিসাইলিক অ্যাসিড ডেইলি জেনট্যাল ক্লিনজার

এখন বর্তমানে সবার জনপ্রিয় একটি ফেসওয়াশের নাম হল এই কজারেক্স স্যালিসাইলিক অ্যাসিড ডেইলি জেনট্যাল ক্লিনজার। গরমের সময় যাদের টক অনেক বেশি ওয়েলি ভাব থাকে এবং শীতের সময়ও অনেক বেশি ভাব থাকে তাদের জন্য এই ফেসওয়াশ কার্যকরী হবে। এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে ত্বকের ব্রেকআউটস এর সমস্যা সমাধান করতে পারে।

তবে এই ফেসওয়াশের সবথেকে ভালো দিক হলো যাদের ত্বক অনেকটাই বেশি সেনসিটিভ তারা চাইলে নিঃসংকোচে এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও যাদের ত্বকে অনেক বেশি পরিমাণে ব্রণ রয়েছে তারা ওই ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারবেন নির্দ্বিধায়। এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে এটি ত্বকের গভীর থেকে ক্লিন তো করবেই এর পাশাপাশি এটি ত্বক অনেক বেশি ড্রাই করতে দেয় না।

নিউট্রোজিনা ক্লিয়ার এন্ড সুদ মূজ ক্লিনজার

মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে। এই ফেসওয়াশটি তৈরি করার ক্ষেত্রে হলুদ ব্যবহার করা হয়েছে। আমরা সকলেই জানি আমাদের টকের জন্য হলুদ কতটুকু উপকারী। তাই আপনি যদি এই ফেসওয়াশ নিয়মিত ব্যবহার করেন তাহলে এটি আপনার ত্বকের হ্যাকাসে ভাব দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে নিয়ে আসবে। এছাড়াও ত্বকে যাদের বয়সের ছাপ পড়েছে অথবা যাদের ত্বকে অতিরিক্ত পরিমাণে বলি রেখা রয়েছে এই সমস্যার সমাধান করতে সক্ষম এই ফেসওয়াশ।

যেহেতু আমরা সকলেই জানি হলুদের মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল গুণাগুন, আর তাই এটি আমাদের ত্বকের সকল ধরনের ব্রণের সমস্যা দূর করতে সক্ষম। এছাড়া ব্রণ দূর হওয়ার পরে অথবা এমনিতে ব্রণের যে দাগ হয়ে যায় সেই দাগও দূর করে। লোমকূপের গভীর থেকে অতিরিক্ত পরিমাণে তেল দূর করে নিয়ে আসে এবং ত্বকের প্রদাহ কমিয়ে নিয়ে আসে।
উপরের উল্লিখিত ফেসওয়াশগুলো আপনারা ব্যবহার করতে পারেন। তবে যাদের টক অনেক বেশি স্কিন সেনসিটি এবং অনেক বেশি স্কিন তৈলাক্ত থাকে এর জন্য আমরা গরমের সময় যে ফেসওয়াশগুলো ব্যবহার করতে পারে সে তো সময়ে এসে ফেসওয়াশগুলো ব্যবহার করতে পারেনা। এর কারণ হলো যদি আমরা গরমের সময়ের ব্যবহার করা ফেসওয়াশ শ আবার শীতের সময় ব্যবহার করে তাহলে এটি আমাদের ত্বককে আরো অনেক বেশি সুস্থ করে তোলে।

তাই উপরের উল্লেখিত ফেসওয়াশগুলোর মধ্য থেকে আপনি ফেসওয়াশ নিয়ে ব্যবহার করতে পারবেন। এই সকল ফেসওয়াশগুলো আপনি গরমের মধ্যেও যেমন ভাবে ব্যবহার করতে পারবেন ঠিক তেমনি শীতের সময়ও আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়াও এই সকল ফেসওয়াশগুলো বেশ কিছুদিন ব্যবহার করার ফলে এটি ত্বকের সাথে খুব সহজে মানিয়ে নিতে পারে। আশা করছি আপনারা সম্পূর্ণ বুঝতে পেরেছেন।

মেয়েদের ব্রণের জন্য কোন ফেসওয়াস ভালো

ব্রণের সমস্যায় মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে সেই সম্পর্কে এখন আমরা জানবো। কেননা আমাদের এমন অনেকেই রয়েছেন যাদের মধ্যে ত্বকের ব্রণের সমস্যা খুব বেশি পরিমাণে। তাই তারা ব্রণের সমস্যা দূর করতে চান তারা নিম্নের দেখানো ফেসওয়াসগুলো আপনি ব্যবহার করতে পারেন। এমনি আমরা বেশ কিছু ব্রণের সমস্যার জন্য ব্যবহৃত ফেসওয়াশের নাম উল্লেখ করেছি। চলুন তাহলে এক নজরে দেখে নেওয়া যাক।
মেয়েদের ব্রণের জন্য কোন ফেসওয়াস ভালো
  • ডার্মালোজিকা ব্রেকআউট ক্লিয়ারিং ফোমিং ওয়াশ
  • মিস্টিন ব্রণ ক্লিয়ার ফেসিয়াল ফোম ফেস ওয়াশ
  • বডি শপ টি ট্রি স্কিন ক্লিয়ারিং ফেসওয়াশ
  • skinpro ব্রণ ক্লিয়ারিং জেল ক্লিনজার
  • পন্ড'স পিম্পল ক্লিয়ার ফেসওয়াশ
  • সিম্পল ডেইলি স্কিন ডিটক্স পিউরিফাইং ফেসিয়াল ওয়াশ
  • বডি শপ মামার্থ অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ফেসওয়াশ
  • ল্যাকমি ব্লাশ অ্যান্ড গ্লো কিউয়ি ক্রাশ জেল ফেসওয়াশ
  • পিয়ার্স আলট্রা মাইল্ড ফেসওয়াশ ইন অয়েল ক্লিয়ার গ্লো
  • মুচস্ট্যাক ওশান ফেস ওয়াশ
আপনারা যারা ত্বকের অত্যাধিক ব্রণের সমস্যার ভুগছেন তারা উপরের উল্লিখিত ফেশওয়াশগুলো চাইলে ব্যাবহার করতে পারেন। তবে অবশ্যই আপনাকে এই ফেশওয়াশগুলোর দিকনির্দেশনা মেনে তারপরে ব্যাবহার করতে হবে। এছাড়াও এই সকল ফেশওয়াশগুলো কেনো ব্যবহার করবেন সেই সম্পর্কে আমরা প্রথম অংশে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। যদি না দেখে থাকেন তাহলে অবশ্যই দেখে নেবেন।

মেয়েদের শুষ্ক ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াস ভালো

ত্বকের শুষ্কতায় মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো সেই সম্পর্কে আমদের জানা উচিত হবে। কারণ মেয়েদের শুষ্ক ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াস ভালো হবে সেই সম্পর্কে না জেনে আমরা যদি যেকোন একটি ফেসওয়াশ ব্যাবহার করি তাহলে সেটি আমাদের ত্বকের জন্য আরো অনেক বেশি খারাপ হবে। তাই চলুন এই বিষয়ে জেনে নেওয়া যাক।

সুস্থ শুষ্ক ত্বক নিয়ে আমরা অনেকেই ভোগান্তির শিকার হয়ে থাকে। আর এই সমস্যার সমাধান করার জন্য আমাদের সবার প্রথমে ত্বক পরিষ্কার এবং পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। এছাড়াও আমাদের খেয়াল রাখতে হবে আমাদের ত্বকে কেন কোন প্রকারের ধুলাবালি না লাগে। সেইদিকে লক্ষ্য রাখা আমাদের সকলের উচিত। এছাড়াও আমাদের ত্বক শুষ্কতা নির্ভর করে আমাদের ব্যবহৃত ফেসওয়াশের উপরে।

এর কারণ হলো আমরা যে সকল ফেসওয়াশগুলো ব্যবহার করি সেই সকল ফেসওয়াশ ব্যবহার করার সময় আমরা যদি পরিমাণ মতো ব্যবহার না করে আরো অত্যাধিক মাত্রায় ব্যবহার করে তাহলে এটি আমাদের ত্বকের জন্য ক্ষতিকর হবে। এছাড়াও আমরা ত্বকের ক্ষেত্রে শুষ্কা দূর করার জন্য যে সকল ফেসওয়াশ ব্যবহার করি সেখান থেকে আমাদের সকলকে এমন ফেসওয়াশ ব্যবহার করার জন্য বেছে নিতে হবে যে ফেসওয়াশে ফেনা কম আসে।
আমরা অনেকেই মনে করে থাকি যে ফেসওয়াশ ফেনা বেশি আসে সেই ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে হয়তো আমাদের ত্বক আরো অনেক বেশি উজ্জ্বল হবে। এবং ত্বকের শুষ্কতা দূর হয়ে যাবে। তবে এমনটি ভুল একটি ধারণা। এমন আপনার ত্বকের জন্য সবথেকে ভালো হতে পারে পিয়ার্স আলট্রা মাইল্ড ফেসওয়াশ-অয়েল ক্লিয়ার গ্লো এই ফেসওয়াসটি।

এর কারণ হলো পিয়ার্স আলট্রা মাইল্ড ফেসওয়াশ-অয়েল ক্লিয়ার গ্লো ব্যবহার করলে আমাদের ত্বককে গভীর থেকে পরিষ্কার করবে। এবং এটি আমাদের ত্বকের শুষ্কতা দূর করে ফেলবে খুব সহজে। এছাড়াও এটি আমাদের ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখবে। যার কারণে এটি হতে পারে আপনার জন্য একটি সর্বোত্তম ফেসওয়াশ।

FAQ । মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো সেই সম্পর্কে সাধারণ জিজ্ঞাসা

প্রশ্নঃ মেয়েদের জন্য ভালো ফেসওয়াশ কোনটি?
উত্তরঃ মেয়েদের জন্য যদি সবথেকে ভালো ফেসওয়াশের কথা বলতে তাহলে বেশ কিছু ফেসওয়াশের নাম বলতে হয়। সেই সকল ফেসওয়াশগুলো হলো
  • পন্ড'স পিম্পল ক্লিয়ার ফেসওয়াশ
  • ডার্মালজিকা ব্রেকআউট ক্লিয়ারিং ফোমিং ওয়াশ
  • সিম্পল ডেইলি স্কিন ডিটক্স পিউরিফায়িং ফেসিয়াল ওয়াশ
  • ল্যাকমে ব্লাশ অ্যান্ড গ্লো কিউয়ি ক্রাশ জেল ফেসওয়াশ
  • পিয়ার্স আলট্রা মাইল্ড ফেসওয়াশ ইন অয়েল ক্লিয়ার গ্লো
প্রশ্নঃ মুখের জন্য সবচেয়ে ভালো ফেসওয়াশ কোনটি?
উত্তরঃ আপনি যদি মুখের তৈলাক্তভাব দূর করতে চান তাহলে আপনার জন্য সবথেকে ভালো হবে পিয়ার্স আলট্রা মাইল্ড ফেসওয়াশ ইন অয়েল ক্লিয়ার গ্লো অথবা Cetaphil ফেসওয়াশ। আর যদি আপনি ত্বকের ব্রণের সমস্যা দূর করতে চান তাহলে আপনার জন্য ভালো হবে পন্ড'স পিম্পল ক্লিয়ার ফেসওয়াশ।

প্রশ্নঃ তৈলাক্ত ত্বকের জন্য সবচেয়ে ভালো ক্রিম কোনটি?
উত্তরঃ তৈলাক্ত ত্বকের জন্য সবথেকে ভালো কিছু ক্রিমের নাম হলো
  • ল্যাকমে অ্যাবসলিউট পারফেক্ট রেডিয়েন্স ক্রিম
  • গ্লো অ্যান্ড লাভলি মাল্টি ভিটামিন ক্রিম
  • গার্নিয়ার স্কিন ন্যাচারালস লাইট কমপ্লিট সিরাম ক্রিম
  • লোটাস হার্বালস ওয়াইট গ্লো জেল ক্রিম
প্রশ্নঃ শুষ্ক ত্বকের জন্য কোন ফেসওয়াশ ভালো?
উত্তরঃ শুষ্ক ত্বকের জন্য তেমন ভালো ফেসওয়াশ বলতে আপনি এমন ধরণের ফেসওয়াশ ব্যাবহার করতে পারেন যেই ফেসওয়াশ অয়েলিযুক্ত। এছাড়াও আপনি জেল ফেসওয়াশ ব্যাবহার করতে পারেন। যেটি আপনার ত্বকের শুষ্কতা দূর করবে।

প্রশ্নঃ সাবান নাকি ফেসওয়াশ কোনটা ভালো?
উত্তরঃ যদি আপনি ত্বকের ব্যাবহার করতে চান তাহলে সবথেকে ভালো হলো ফেসওয়াশ। আপনি এখানে সাবাদ ব্যাবহার করা থেকে বিরত থাকবেন। কেননা সাবানে অতিরিক্ত মাত্রায় ক্ষার থাকে। যার জন্য এটি ব্যাবহার করলে এটি আপনার ত্বককে ক্ষতিগ্রস্থ করতে পারে।

শেষ কথা

আজকের সম্পূর্ণ আর্টিকেলে মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো হবে সেই সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করছি আপনি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এবং বুঝতে পেরেছেন। যদি আর্টিকেলটি ভালো লেগে থেকে তাহলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। তাহলে তারাও অনেকটাই উপকৃত হবে। এমনই আরো তথ্যবহুল আর্টিকেল প্রতিদিন পড়ার জন্য আমাদের সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

পেপারস্পট২৪ এর নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url